প্রতিবছর নতুন আইফোন বাজারে বিক্রি শুরুর দিন অ্যাপল স্টোরের সামনে লম্বা লাইন দেখা যায়। এবারে আইফোন ৮ ও ৮ প্লাস বিক্রি শুরুর দিনে তেমন আগ্রহ দেখা যায়নি। চীন, জাপান, অস্ট্রেলিয়ার বাজারে নতুন আইফোন বিক্রি শুরু করেছে মার্কিন প্রযুক্তিপ্রতিষ্ঠান অ্যাপল।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত কয়েক বছর ধরেই অ্যাপল স্টোরের সামনে তাঁবু খাটিয়ে, লাইন বেঁধে আগে আইফোন হাতে নেওয়ার লোক কমতে দেখা গেছে। মানুষ এখন অনলাইনে কিনতে আগ্রহ দেখাচ্ছেন। এ ছাড়া নতুন আইফোনের ক্ষেত্রে খারাপ প্রতিক্রিয়া আসায় অনেকেই আর লাইনে দাঁড়াননি।

রয়টার্স বলছে, অ্যাপলের নতুন আইফোন এলে শত শত ক্রেতা সিডনিতে অ্যাপল স্টোরের সামনে লাইন দাঁড়ান। কিন্তু শুক্রবার দোকান খোলার সময় ৩০ জনের মতো ক্রেতা দেখা গেছে।

প্রায় ১১ দিন অ্যাপল স্টোরের সামনে অবস্থান করেছেন ম্যাজেন কুরোচি। প্রথম আইফোন ক্রেতা হিসেবে ইউটিউবে এর রিভিউ করতে চান তিনি। তাঁর ভাষ্য, নতুন আইফোনটি আইফোন ৭-এর মতো। কিন্তু এতে উন্নত ক্যামেরা এসেছে। পেছনে গ্লাস ব্যবহার করায় এটি আরও টেকসই হয়েছে। তবে এতে নতুন ফিচার কম।

চীনের এক অ্যাপলভক্ত ক্রেতা বলেন, শুধু উন্নত ক্যামেরার কারণেই তিনি নতুন আইফোন কিনছেন। সাংহাইতে ২৯ বছর বয়সী টা না বলেন, ‘নতুন আইফোনে কী আছে তা জানার জন্য বন্ধুকে নিয়ে ১২ সেপ্টেম্বর মাঝরাত পর্যন্ত আইফোন ঘোষণা অনুষ্ঠান দেখেছিলাম। এর ছবি তোলার ফাংশন দারুণ। আমি নতুন আইফোন নিতে আগ্রহী।’

এর আগের সংস্করণের আইফোন ঘিরে চীনের জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগের ওয়েবসাইট ওয়েবুতে যে উচ্ছ্বাস ছিল, এবার তা অনেক কম।

দশক পূর্তিতে ঘোষণা দেওয়া আইফোন ৮-এর বাজে প্রতিক্রিয়ার ফলে গতকাল বৃহস্পতিবার অ্যাপলের শেয়ার দুই মাসের মধ্যে সবচেয়ে কমতে দেখা গেছে। বিনিয়োগকারীরা নতুন আইফোনের আগাম ফরমাশ আগের সংস্করণের চেয়ে কম হবে বলে দুশ্চিন্তায় আছেন।

প্রযুক্তি বিশ্লেষকেরা বলছেন, আইফোন ১০ আসবে নভেম্বরে। অনেকেই আইফোন ১০-এর জন্য অপেক্ষায় আছেন। যাঁরা কেবল নতুন আইফোন চান এবং ৯৯৯ মার্কিন ডলার দামের আইফোন ১০-এর জন্য অপেক্ষা করতে নারাজ, তাঁরাই কেবল লাইনে দাঁড়িয়েছেন।

আইফোন ১০ হবে গ্লাস ও স্টেইনলেস স্টিলের এজ-টু-এজ ডিসপ্লের ফোন। অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী টিম কুক একে বলেছেন প্রথম আইফোনের চেয়ে আরেক যুগান্তকারী উদ্ভাবন।

জাপানের টোকিওতে আইফোন ৮ কেনার পর রে ইকোয়ামা বলেন, আইফোন ১০-এর জন্য মানুষ বেশি আগ্রহ দেখাবে। তথ্যসূত্র: রয়টার্স।

Share.

About Author