ফেসবুকে কেউ বিরক্তকর বার্তা পাঠাচ্ছে? বন্ধু হওয়ার জন্য অনাকাঙ্ক্ষিত অনুরোধ আসছে? কোনো চিন্তা নেই। সহজেই তা ঠেকাতে পারবেন। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ এ জন্য নিয়েছে বিশেষ ব্যবস্থা। ফেসবুকের এ ফিচার থেকে নারী ও সাংবাদিকেরা বিশেষ উপকার পাবেন।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, তাদের প্ল্যাটফর্মে নিপীড়ন ও হয়রানি ঠেকাতে নতুন সুবিধা আসছে, যাতে অনাকাঙ্ক্ষিত বন্ধুত্বের অনুরোধ ও বার্তা আসবে না।

গতকাল মঙ্গলবার ফেসবুকের নিরাপত্তা বিভাগের বৈশ্বিক প্রধান অ্যান্টিগন ডেভিস এক বিবৃতিতে বলেছেন, নতুন ফিচারগুলো বিরক্তিকর অ্যাকাউন্ট থেকে সুরক্ষা দেবে। এর আগে কাউকে ব্লক করা হলে সে নতুন অ্যাকাউন্ট খুলে আবার বিরক্ত করত। এখন আর সে সুযোগ থাকবে না।

এ ছাড়া চাইলে অনাকাঙ্ক্ষিত ব্যক্তির দেওয়া বার্তা বা মেসেজ উপেক্ষা করা যাবে। এতে ওই বার্তা প্রেরককে ব্লক না করলেও তার বার্তা আর আসবে না। বার্তা বা মেসেজে ক্লিক করলেই সেখানে ইগনোর অপশন আসবে। আর সেখানে ক্লিক করলেই রেহাই পাবেন বিরক্তির হাত থেকে। এতে বার্তা ইনবক্সে না এসে ফিল্টারড মেসেজেস ফোল্ডারে চলে যাবে। এটি আপাতত ব্যক্তিগত পর্যায়ে ব্যবহারের জন্য। শিগগিরই এটি গ্রুপ পর্যায়ে চালু হবে।

ফেসবুক কর্তৃপক্ষ বলছে, নিপীড়নকারীদের প্রায়ই ভুয়া অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে দেখা যায়। ভুয়া অ্যাকাউন্ট তৈরি ঠেকাতে নতুন একটি ফিচার তৈরি করা হচ্ছে। এতে ভুয়া অ্যাকাউন্ট শনাক্ত ও নিবন্ধনের সময়েই আটকানো যাবে।

প্রশ্ন উঠছে, আগে যাদের অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে গেছে, তারা যদি আবার নতুন করে অ্যাকাউন্ট খোলেন, তখন কী হবে?

ফেসবুকের ওই কর্মকর্তা বলেন, আইপি ঠিকানার মতো বিভিন্ন সংকেত ব্যবহার করে এ ধরনের অ্যাকাউন্টগুলো শনাক্ত করা হবে এবং বার্তা ও বন্ধুত্বের অনুরোধ ঠেকানোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তথ্যসূত্র : আইএএনএস।

Share.

About Author