শীর্ষ সফটওয়্যার নির্মাতা মাইক্রোসফট করপোরেশনের কাছ থেকে প্রায় দেড় হাজার প্যাটেন্ট কেনার এক বছরের মধ্যেই বৈশ্বিক প্রযুক্তি বাজারে আবারও আলোচনায় এসেছে চীনা প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান শাওমি। গতকাল বুধবার নকিয়ার সঙ্গে প্যাটেন্ট কেনা–বেচা চুক্তি সম্পাদন করেছে শাওমি।

এ চুক্তির অধীনে শাওমি ও নকিয়া একে অপরের নেটওয়ার্কিং ব্যবহার করতে পারবে। এ ছাড়া শাওমি নকিয়ার অনির্দিষ্ট প্যাটেন্টের ও মালিকানা অর্জন করেছে। চুক্তির অংশ হিসেবে নকিয়া শাওমিকে নেটওয়ার্কের যন্ত্রাংশও দেবে। এ ছাড়া ইন্টারনেট, ভার্চ্যুয়াল রিয়েলিটিসহ কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রযুক্তিও পরস্পরের সঙ্গে বিনিময় করা হবে বলে উল্লেখ রয়েছে চুক্তিতে।

গত কয়েক বছরে চীনের বাজারে শাওমি জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে এসেছে। তবে সম্প্রতি অপো এবং ভিভোর মতো নতুন কিছু প্রতিদ্বন্দ্বীর সঙ্গে পাল্লা দিতে হচ্ছে শাওমিকে। আর সেই প্রতিযোগিতায় নিজেদের শীর্ষস্থান ধরে রাখতে এবং বিশ্ববাজারে নিজেদের আরও জনপ্রিয়তা বাড়াতে নেতৃস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে শাওমি নানা চুক্তিতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।

এশিয়ার বাইরে আরও ৩০টি দেশ এবং অঞ্চলে এখন পর্যন্ত তাদের স্মার্টফোন রয়েছে বলে দাবি শাওমির। এক বিবৃতিতে প্রতিষ্ঠানটি জানায়, সারা বিশ্বে ছয় কোটির বেশি শাওমি মি সিরিজের ফোন রয়েছে, যার মধ্যে প্রায় ৮০ লাখই প্রতিদিন সক্রিয় থাকে। তবে হাতে গোনা কয়েকটি দেশ ছাড়া শাওমি কোনো দেশেই সরাসরি তাদের ফোন বিক্রি করে না, এমনকি যুক্তরাষ্ট্রেও না।

নকিয়ার সঙ্গে প্যাটেন্ট চুক্তি নিয়ে শাওমির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা লেই জুন বলেন, ‘প্রযুক্তিগত উদ্ভাবন দিয়ে পৃথিবীকে আরও অবাক করতে চাওয়া প্রতিষ্ঠান হিসেবে আমরা নকিয়ার সঙ্গে আরও ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করার সুযোগ পেয়ে উদ্দীপ্ত।’ এদিকে নকিয়ার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাজীব সুরি জানান, শাওমির মতো শীর্ষস্থানীয় স্মার্টফোন নির্মাতার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হতে পেরে তাঁরা আনন্দিত।

সূত্র: টেকক্রাঞ্চ

Share.

About Author