শিগগিরই আইফোন টেনের আগাম ফরমাশ নেওয়া শুরু করবে মার্কিন প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাপল। এর আগেই অবশ্য আইফোন টেনের চাহিদা বাড়ার বিষয়টি টের পাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। সম্প্রতি কানাডার আর্থিক সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান আরবিসি ক্যাপিটাল মার্কেটসের পক্ষ থেকে এক জরিপ চালানো হয়। চার হাজার মানুষের মধ্যে পরিচালনা করা ওই জরিপে ২৮ শতাংশ ব্যক্তি আইফোন টেন কিনতে আগ্রহ দেখিয়েছেন। আইফোন ৮ কিনতে আগ্রহ দেখিয়েছেন ১৭ শতাংশ আর আইফোন ৮ প্লাসে আগ্রহ দেখিয়েছেন ২০ শতাংশ ব্যক্তি।

আরবিসির এক বিবৃতিতে জানানো হয়, প্রিমিয়াম দামের ফোন হওয়া সত্ত্বেও আইফোন টেনের উন্নত ফিচার ও পৃথক নকশার জন্য অনেকেই নতুন আইফোন কিনতে আগ্রহী। তাঁদের মধ্যে ৫৭ শতাংশই বেশি স্টোরেজ সুবিধার আইফোন টেনের মডেলটি কিনতে আগ্রহী। ৬৪ জিবি মডেলের চেয়ে তাঁদের বেশি আগ্রহ ২৫৬ জিবি মডেলটিতে। ২৫৬ জিবি মডেলটির জন্য বাড়তি ১৫০ মার্কিন ডলার খরচ হবে।

বাজার বিশ্লেষকেরা ধারণা করছেন, অনেকেই আইফোন ৮ ও ৮ প্লাস কেনার পরিবর্তে নতুন নকশার ফিচারসমৃদ্ধ আইফোন কেনার জন্য অপেক্ষায় আছেন।
তাইওয়ানভিত্তিক বাজার গবেষণা প্রতিষ্ঠান কেজিআই সিকিউরিটিজের বিশ্লেষক মিং-সি কুয়ো জানিয়েছেন, আইফোন টেন ঘিরে মানুষের যত আকর্ষণ। এ কারণেই আইফোন টেনের চাহিদা চার থেকে পাঁচ কোটি ইউনিট ছাড়িয়ে যেতে পারে।

বিশ্লেষকেরা বলছেন, আইফোন টেনের চাহিদা বাড়তে থাকায় আইফোন ৮ ও ৮ প্লাসের ক্রেতা কম। অ্যাপল এই দুটি মডেলের আইফোন বিক্রি পর্যালোচনা করছে। তাই আইফোন টেনের যন্ত্রাংশ সরবরাহকারীদের তাড়াহুড়ো না করার পরামর্শ দিয়েছে।

২০১৪ সালে বাজারে আসা আইফোন ৬-এর পর আইফোন টেনে বড় ধরনের পরিবর্তন এনেছে অ্যাপল। অ্যাপলভক্তরা বিশেষ করে যাঁরা আইফোন ৬ ও ৬ এস ব্যবহার করছেন, তাঁরা নতুন আইফোনে বেশি আগ্রহী হবেন। ফেসআইডি, ট্রুডেপথ ক্যামেরায় উন্নত অভিজ্ঞতা পাবেন ব্যবহারকারীরা।

১২ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে দশক পূর্তির চমক হিসেবে আইফোন টেনের ঘোষণা দেয় মার্কিন প্রযুক্তিপণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অ্যাপল। এতে এজ-টু-এজ স্ক্রিন, কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন চিপ, ফেসিয়াল রিকগনিশন নতুন সেন্সর, এনিমেটেড ইমোজি, ব্যাকগ্রাউন্ড ব্লার করার সুবিধাযুক্ত পোর্টেট মোড সেলফি, অগমেন্টেড রিয়্যালিটি গেম প্ল্যাটফর্ম ও তারহীন চার্জিংয়ের মতো প্রযুক্তি আছে। অ্যাপলের দাবি, ফোনটি আইফোন ৭-এর চেয়ে দুই ঘণ্টা বেশি চার্জ ধরে রাখতে পারে। আইফোন টেনের দাম ৯৯৯ মার্কিন ডলার হবে। তথ্যসূত্র: বিজিআর।

Share.

About Author